Loading...
You are here:  Home  >  ইউরোপ  >  Current Article

এবার ইউরোপ থেকে এল ১৪৪ টন ত্রাণ

বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের জন্য যুক্তরাজ্যের একটি সাহায্য সংস্থা শুক্রবার সকালে আরেকটি উড়োজাহাজে ৮৫ টন ত্রাণ পাঠিয়েছে। এ ছাড়া ফিনল্যান্ড ও নরওয়ের রেডক্রস দুপুরে যৌথভাবে রোহিঙ্গাদের চিকিৎসার জন্য এক উড়োজাহাজে ৫৯ টন চিকিৎসা-যন্ত্রপাতি পাঠিয়েছে।

সকালে চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যুক্তরাজ্যের ত্রাণ ও নরওয়ে-ফিনল্যান্ডের চিকিৎসা-যন্ত্রপাতি গ্রহণ করেছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, শুক্রবার সকাল পৌনে সাতটায় যুক্তরাজ্যের আন্তর্জাতিক সহায়তা সংস্থা ডিএফআইডির ৮৫ টন ত্রাণবাহী উড়োজাহাজ চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে অবতরণ করে। ত্রাণসামগ্রীর মধ্যে রয়েছে ১ হাজার ৪৭৮ শেল্টার কিট, ২০ হাজার কম্বল এবং সাড়ে ১০ হাজার ঘুমানোর ম্যাট। চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) মো. হাবিবুর রহমান এ ত্রাণ গ্রহণ করেন। এ সময় ডিএফআইডির লজিস্টিকস কর্মকর্তা মার্ক কুইন উপস্থিত ছিলেন। আগের দিন বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার মিলে গত দুই দিনে ১৮৩ টন ত্রাণ এল যুক্তরাজ্য থেকে।

জেলা প্রশাসন সূত্র আরও জানায়, নরওয়ে ও ফিনল্যান্ডের রেডক্রস ৫৯ টন ওজনের চিকিৎসা-যন্ত্রপাতি পাঠিয়েছে। বেলা দুইটায় এসব যন্ত্রপাতিও গ্রহণ করেছেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান।

মো. হাবিবুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, যুক্তরাজ্য ৮৫ টন ত্রাণ নিয়ে একটি উড়োজাহাজ চট্টগ্রামে অবতরণ করে। এগুলো রোহিঙ্গাদের জন্য কক্সবাজারে পাঠানো হবে। তিনি আরও বলেন, ‘কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবিরে একটি হাসপাতাল করবে ফিনল্যান্ড ও নরওয়ের রেডক্রস। এ জন্য জায়গাও চিহ্নিত হয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। ওই হাসপাতালের জন্য ফিনল্যান্ড ও নরওয়ের রেডক্রস যৌথভাবে মেডিকেল ইকুইপমেন্ট (চিকিৎসা-যন্ত্রপাতি) পাঠিয়েছে।’

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের জন্য শুক্রবার পর্যন্ত বিভিন্ন দেশ, বিভিন্ন সাহায্য সংস্থা এবং রেডক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট এক হাজার ৫৪৫ টন ত্রাণ চট্টগ্রামে পাঠিয়েছে। দেশগুলো হচ্ছে ভারত, চীন, মরোক্কো, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, সৌদি আরব, যুক্তরাজ্য, জাপান, ইরান, ফিনল্যান্ড ও নরওয়ে। ত্রাণের মধ্যে রয়েছে ভোগ্যপণ্য, শিশুখাদ্য, তাঁবু, কম্বল, ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম।

২৫ আগস্ট সেনাক্যাম্পে হামলার অভিযোগে মিয়ানমারের রাখাইনে দেশটির সেনাবাহিনী হত্যা, নির্যাতন, ধর্ষণ শুরু করে। এরপরই সেখানকার রোহিঙ্গারা পালিয়ে পাহাড় ও সাগর পেরিয়ে বাংলাদেশে আসে। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে পালিয়ে রোহিঙ্গার সংখ্যা পাঁচ লাখ ছাড়িয়েছে। তাদের সহায়তার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশ হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।

    Print       Email

You might also like...

6211cf95a9a5d20ef239f0141814a67a-5a0c53634c71d

তুরস্কে বাংলাদেশের ওষুধ শিল্পের সম্ভাবনা নিয়ে সেমিনার

Read More →