Loading...
You are here:  Home  >  এক্সক্লুসিভ  >  Current Article

জার্মানিতে বিএনপির ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে প্রধানমন্ত্রী

BNPজার্মানির মিউনিখে বিএনপি নেতাকর্মীদের ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পড়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর জার্মানি সফরকে কেন্দ্র করে ইউরোপের বিভিন্ন দেশের বিএনপির নেতাকর্মীরা নির্ধারিত কনফারেন্স হলের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ সমাবেশ ও কালো পতাকা প্রদর্শন করেন।
প্রধানমন্ত্রীর জার্মানি সফরকে কেন্দ্র করে জার্মানি বিএনপি এই বিক্ষোভ সমাবেশ ও কালো পতাকা প্রদর্শন কর্মসূচির আয়োজন করে।
প্রচণ্ড শীত এবং বৃষ্টি উপেক্ষা করে ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত বিএনপির হাজার হাজার নেতাকর্মীরা শেখ হাসিনা সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এ সময় কালো পতাকা হাতে নিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা প্রধানমন্ত্রীকে লক্ষ করে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন। তারা বিভিন্ন স্লোগান সম্বলিত ব্যানার ও ফেস্টুন প্রদর্শন করেন। বিএনপির ব্যাপক বিক্ষোভের মধ্যেই ৫৩তম মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
জার্মানি বিএনপির সভাপতি আকুল মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহিদুর রহমান, সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন খোকন, যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেক, সুইডেন বিএনপির প্রধান উপদেষ্টা মহিউদ্দিন আহমেদ জিন্টু, ডেনমার্ক বিএনপির সভাপতি গাজি মনির আহমেদ, ফিনল্যান্ড বিএনপির সভাপতি কামরুল ইসলাম জনি, ইতালি বিএনপির সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, ফ্রান্স বিএনপির সভাপতি সাইফুর রহমান, অস্ট্রিয়া বিএনপির সাবেক সভাপতি ফজলুর রহমান বকুল, নেয়ামুল বশির, সুইডেন বিএনপির সভাপতি এমদাদুল হক কচি, নেদারল্যান্ড বিএনপির সভাপতি শরিফ উদ্দিন, জার্মানি বিএনপির প্রধান উপদেষ্টা সেলিম খান, সাধারণ সম্পাদক আবদুল গনি সরকার ও ১ম যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মোস্তাক খান, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী সুরুজ, সাংগঠনিক সম্পাদক জুলফিকার সাইদ মনা, বেলজিয়াম বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি আহমেদ সাজা, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইকবাল হোসেন বাবু প্রমুখ।
বিক্ষোভ সমাবেশে ইউরোপ বিএনপির নেতারা তাদের বক্তব্যে বলেন, শেখ হাসিনা দেশের মানুষকে অশান্তিতে রেখে, গনত্রন্ত্রকে হত্যা করে এখন মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে অংশ নেওয়ার নামে দেশের টাকা অপচয় করছেন। তারা বলেন, ৫ জানুয়ারির ভোটার বিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে শেখ হাসিনা গনত্রন্ত্রকে হত্যা করেছে।
তারা বলেন, শেখ হাসিনার অবৈধ সরকারের দুঃশাসন ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা এখন বিশ্বে সুপরিচিত। গনত্রন্ত্র ও মানবাধিকারের দেশ জার্মানিতে এমন একজন গনত্রন্ত্র হত্যাকারীর স্থান হতে পারে না বলে তারা মন্তব্য করেন। বিএনপির নেতারা বলেন এখন সময় শেখ হাসিনা ও তার সরকারকে প্রতিরোধ করার। শেখ হাসিনার সরকারকে অবৈধ উল্লেখ করে বিএনপির নেতারা দুঃশাসন ও বাকশাল প্রতিরোধ করার ঘোষণা দেন।
বিক্ষোভ সমাবেশে ইউরোপ বিএনপির নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, যুক্তরাজ্য: লন্ডন মহানগর বিএনপির সাধারন সম্পাদক আবেদ রাজা, শরিফ উদ্দিন বাবু, রহিম উদ্দিন, আলি আহমেদ, ডালিয়া লাকুরিয়া, জামাল আহ্মেদ,আবুল হোসেন, হাবিবুর রাহমান হাবিব, মনসুর, শাজাহান। ডেনমার্ক: সাধারন সম্পাদক ওমর ফারুক, বদিউজ্জান মামুন, সারোয়ার খান, রাসেল আহমেদ। ফিনল্যান্ড বিএনপির সহ সভাপতি আব্দুর রাশিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মজিবুর রহমান হিরক, যুব নেতা সামছুল গাজি। অষ্ট্রিয়া শেখ শামসুজ্জামান বাবুল, লিয়াকত আলি, আনিসুজ্জামান, মাসুদুর রহমান, সাবেক ছাত্র দল সভাপতি মাইদুল মিয়া। ইতালি বিএনপির সহ সভাপতি ইমদাদুল হক মৃধা, সাংগঠনিক সম্পাদক কাম্রুজ্জামান রতন, ফাহিমা আক্তার মুকুল, আব্দুল আযিয। সুইজারল্যান্ড বিএনপি সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান, শেখ আনোয়ার, কাবির মোল্লা। ফ্রান্স হাজি হাবিব, জালাল পাটওয়ারি। সুইডেন বিএনপির সাধারন সম্পাদক মোহন, ডা রুবেল, মোহাম্মাদ লিংকন। বেলজিয়াম বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি আলী জাহাঙ্গীর ভিপি মোয়াজ্জেম হোসেন মাসুদ রানা শাহিন আহমদ ফারুক মোল্লা হারুন অর রশীদ হাসান লিটন স্পেন বিএনপি নেতা লুতফুর রহমান, গ্রিস বিএনপি সাবেক সভাপতি জুলহাস প্রমুখ।
জার্মানি বিএনপির নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপদেষ্টা জিয়াউল হক বাবু, সহ সভাপতি সাইফুল করিম মজুমদার, যুবদল নেতা আনহার মিয়া, হাবিবুল্লাহ আল বাহার, শাহ আলম, শরিয়ত খান মিঠু, মোহাম্মাদ আলি জীবন, তুশার আহমেদ, বাডেনবুটেনবার্গ প্রদেশের সভাপতি আব্দুর রউফ চাকলাদার, জিয়া, খোরশেদ আলম হিরা, মিয়া মজিবুর রহমান, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা সেলি মিয়া, বার্লিন মহিলা দল নেত্রী আয়েশা বেগম শিল্পী, সাধারন সম্পাদক ববি, ছাত্র নেতা নুরুল পুন্য, হাসান ভুইয়া, নাযমুল হাসান প্রমুখ।

    Print       Email

You might also like...

_97945049_gettyimages-509148854

মিয়ানমারের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা উচিত: জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান

Read More →