Loading...
You are here:  Home  >  সাহিত্য  >  Current Article

তাহমিমা আনামের নতুন উপন্যাস ‘দ্য বোনস অব গ্রেস’

3d0dd8eec4bde731b028a8e79b11aa7a-5984c7a0dfb32
২০০৭ সালে আ গোল্ডেন এজ (সোনাঝরা দিন)নামের একটি উপন্যাস সাড়া ফেলে দিয়েছিল। এ বইয়ের জন্য লেখক সেরা প্রথম বই ক্যাটাগরিতে ২০০৮ সালে কমনওয়েলথ রাইটার্স প্রাইজ পেয়েছিলেন। লেখক এ দেশেরই। নাম তাহমিমা আনাম। এবার প্রকাশিত হলো এই তরুণ ঔপন্যাসিকের তৃতীয় উপন্যাস দ্য বোনস অব গ্রেস (গ্রেসের হাড়গোড়)। গতকাল রাজধানীর ফার্মগেটে ডেইলি স্টার সেন্টারে হলো এ বইয়ের প্রকাশনা উৎসব।

প্রথমটির পর দ্য গুড মুসলিম নামের আরেকটি উপন্যাস লিখেছিলেন তাহমিমা। অনুষ্ঠানে তাহমিমা বলেন, দ্য বোনস অব গ্রেস এই ট্রিলজির শেষ অংশ। বইটি প্রকাশিত হয়েছে ডেইলি স্টার বুকস থেকে। দ্য গুড মুসলিম বইটি একই নামে বাংলায় অনুবাদ করে প্রকাশ করেছিল প্রথমা প্রকাশন। অনুবাদ করেছিলেন কথাসাহিত্যিক মশিউল আলম।

এই তিনটি উপন্যাসে তাহমিমা পুরো বাংলাদেশকে একসুতোয় গেঁথেছেন। প্রথম উপন্যাসের কাল শুরু হয়েছিল ১৯৫৯ থেকে, তৃতীয় উপন্যাস শেষ হলো বর্তমান সময়ে। তাহমিমার নতুন উপন্যাসটি একই সঙ্গে প্রেমের, আবার আত্মপরিচয় সন্ধানেরও। জুবাইদা হক নামের একটি মেয়েকে মুক্তিযুদ্ধ-পরবর্তী সময়ে দত্তক নিয়েছিল এক পরিবার। বড় হয়ে জুবাইদা খুঁজছে তার আসল পরিবারকে। তার প্রেমিককে সে লেখে, সে তাকে আরও ভালোবাসতে পারবে তখনই, যখন সে নিজেকে জানবে। একসময় তার দেখা হয় জাহাজভাঙা শিল্পের সঙ্গে জড়িত আনোয়ারের সঙ্গে, যে জুবাইদাকে শুধু তার অতীতকে খুঁজে পেতে সাহায্য করবে না, পরিচয় করিয়ে দেবে নতুন এক ভবিষ্যতের সঙ্গেও। ‘গ্রেস’ নামের এক জাহাজের সঙ্গে জড়িয়ে যায় জুবাইদার গল্প।

অনুষ্ঠানে সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম তাঁর আলোচনায় বলেন, উপন্যাসটি শুরু করার পর শেষ না করে আর উপায় ছিল না। শুরুটা পরিদের গল্পের মতো, কিন্তু এটা একদমই তা নয়। একই সঙ্গে শ্রমিকদের কথা বলা হয়েছে এ উপন্যাসে, আবার আছে পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর সংগ্রামের কথা। কোনো নির্দিষ্ট থিম এই উপন্যাসের নেই। এখানে অনেক ঘটনা, অনেক বিষয়; কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেটার একটা মানেও দাঁড়ায়।

সেলিনা হোসেন বলেন, তাহমিমা দেশের বাইরে নিয়ে যাচ্ছেন দেশকে। বাংলাদেশের শিকড়ের সন্ধানটিকে তুলে ধরছেন আন্তর্জাতিক পাঠকের কাছে। তিনি আশা করেন, তাহমিমার হাত ধরে বাংলাদেশ সাহিত্যে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পাবে।

ইমদাদুল হক মিলন বলেন, আ গোল্ডেন এজ-এআছে ১৯৬৯-এর গণ-অভ্যুত্থান থেকে শুরু করে মুক্তিযুদ্ধ ও যুদ্ধজয়ের গল্প। ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত উপন্যাসের ব্যাপ্তি। দ্বিতীয় উপন্যাসের ব্যাপ্তি ১৯৭২ থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত। সেখানে সদ্য স্বাধীন দেশের ভাঙনের কালকে সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন তাহমিমা। তিনি আশা করেন, দ্য বোনস অব গ্রেসও আগের দুটির মতোই অসাধারণ উপন্যাস হবে।

আলোচনায় আরও ছিলেন সাহিত্য সমালোচক অধ্যাপক ফেরদৌস আজিম ও অধ্যাপক আহরার আহমেদ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন স্টার লিটারেচার অ্যান্ড বুকসের কন্ট্রিবিউটিং এডিটর অধ্যাপক ফখরুল আলম। আলোচনার পর উপস্থিত দর্শকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন তাহমিমা আনাম।

    Print       Email

You might also like...

আন্তর্জাতিক সাহিত্য উৎসব – ঢাকা লিট ফেস্ট

Read More →