Loading...
You are here:  Home  >  ধর্ম-দর্শন  >  Current Article

ধর্ম নিয়ে নিজের অবস্থান জানালেন মমতা

image-142987-1529209259

শুধু হিন্দু নয়, বরং মুসলিমসহ অন্য ধর্মের সব মানুষকে সম্মান করেন বলে জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গতকাল শনিবার ঈদের দিনের এক অনুষ্ঠানে ধর্ম নিয়ে তার অবস্থান পরিষ্কার করে একথা জানান তিনি।

ভারতের শীর্ষস্থানীয় এক গণমাধ্যম জানিয়েছে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বারবার অভিযোগ উঠেছে যে তিনি সংখ্যালঘু সম্প্রদায় তথা মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকেদের তোষণ করেন। কেন্দ্রের শাসকদল বিজেপির পক্ষ থেকে বহুবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে মুসলিম তোষণের অভিযোগ তোলা হয়েছে। রাজ্যের সুবিশাল মুসলিম ভোট ব্যাংক দখল করতেই নাকি মুসলিম তোষণ করেন এই নেত্রী।

এই একই অভিযোগ বিজেপি ছাড়াও অন্যান্য অনেক রাজনৈতিক দলও করেছে বিভিন্ন সময়ে। শনিবার ঈদের এক অনুষ্ঠানে সেই অভিযোগের জবাব দিলেন মমতা। এদিন ঈদ উপলক্ষে রেড রোডের অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘অনেকের অভিযোগ আমি নাকি মুসলিম তোষণ করি। যদি হিন্দুদের আমি ভালোবাসি তাহলে কী মুসলিমদের ঘৃণা করতে হবে?’

অভিযোগকারীদের প্রতি প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেছন, ‘আমি সকল ধর্ম এবং সম্প্রদায়ের লোকেদেরকেই সম্মান করি। এই দেশ সকলের।’

অভিযোগকারীদের আক্রমণ করে মমতা বলেন, ‘যারা আমার বিরুদ্ধে মুসলিম তোষণের অভিযোগ করে তারা হিন্দু বা মুসলিম কারও বন্ধু নয়।’

আগামী বছরে সমগ্র দেশ জুড়ে অনুষ্ঠিত হবে লোকসভা নির্বাচন। দেশের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের আগে সব সাম্প্রদায়িক ভেদাভেদ দূর করার ডাক দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের প্রশাসনিক প্রধান।

সন্ত্রাসের সঙ্গে কোনো ধর্মের যোগ থাকে না বলেও দাবি করেছেন তৃণমূল নেত্রী। তার কথায়, ‘আমাদের বুঝতে হবে যে সন্ত্রাসের কোনো ধর্ম হয় না। দেশ থেকে সাম্প্রদায়িক ভেদাভেদ দূর করতে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে সকলকে এক হতে হবে।’ এ সময় নতুন ভারত গড়ার লক্ষ্যে সবাইকে একসঙ্গে লড়াই করার আহ্বান জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

    Print       Email

You might also like...

333970_15

দুই ওয়াক্ত নামাজ হয় কাজানের কুল শরীফ মসজিদে

Read More →