Loading...
You are here:  Home  >  ক্রীড়া  >  Current Article

পাকিস্তানের আপত্তিতে ভারতে হচ্ছে না এশিয়া কাপ

Sports

গত এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতের মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। প্রথম আলো ফাইল ছবিএশিয়া কাপের ১৪তম আসর এ বছর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল ভারতে। কিন্তু পাকিস্তানের আপত্তি থাকায় টুর্নামেন্টের স্বাগতিক দেশ পাল্টে গেল। সংযুক্ত আরব আমিরাতকে আয়োজনের ভার দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) আবেদন অনুমোদন করেছে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি)। বার্ষিক বৈঠকে সিদ্ধান্তটি চূড়ান্ত করেছেন এসিসি ও পিসিবি সভাপতি নজম শেঠি। সেপ্টেম্বরের এই আসরে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তানসহ মোট ছয়টি দলের অংশ নেওয়ার কথা।
ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে রাজনৈতিক দ্বন্দ্বই ভেন্যু পাল্টানোর কারণ হিসেবে দেখা হচ্ছে। ক্রিকইনফোকে এসিসি সভাপতি নজম শেঠি বলেন, ‘এসিসি বিষয়টি সুচিন্তিতভাবে ভেবে সিদ্ধান্ত নিয়েছে এটাই সেরা পথ (ভেন্যু পাল্টানো)।’ ২০০৮ সালে মুম্বাইয়ে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে পাকিস্তানের সঙ্গে কোনো দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলেনি ভারত। তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মতো বৈশ্বিক কিংবা এশিয়া কাপের মতো মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের আসরে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি হয়েছে।
সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, এসিসির ইমার্জিং টিমস এশিয়া কাপে (অনূর্ধ্ব-২৩) ভারত দল না পাঠালে পাকিস্তানও এশিয়া কাপে না পাঠাবে না, পিসিবি এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে সংকট কাটাতেই এশিয়া কাপের ভেন্যু পাল্টানো হয়েছে। ইমার্জিং টিমস এশিয়া কাপের দুই আয়োজক দেশ পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা। গত এপ্রিলে টুর্নামেন্টটি অনুষ্ঠিত হওয়া কথা থাকলেও তা ডিসেম্বরে নেওয়া হয়।
এসিসির সদস্যভুক্ত পাঁচ দল (ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান) টুর্নামেন্টে অংশ নেবে। তবে মোট ছয়টি দল অংশ নেবে এ টুর্নামেন্টে। ষষ্ঠ দলটিকে প্লে-অফ খেলে চূড়ান্ত টুর্নামেন্টে উঠে আসতে হবে। ভেন্যু পাল্টানো হলেও এশিয়া কাপের সূচি পাল্টানো হয়নি। ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মাঠে গড়াবে এশিয়া কাপ।

    Print       Email

You might also like...

317859_12

এবার বিশ্বকাপের মঞ্চ মাতাবে মুসলিম দেশগুলো

Read More →