Loading...
You are here:  Home  >  প্রবাস  >  Current Article

প্রযুক্তিশিক্ষায় ১ মিলিয়ন ডলার শিক্ষাবৃত্তির ঘোষণা

usa

উত্তর আমেরিকায় বাংলাদেশি অভিবাসীদের জন্য ১ মিলিয়ন ডলার শিক্ষাবৃত্তির ঘোষণা করা হয়েছে। আর ঘোষণাটি দিয়েছে বাংলাদেশি মালিকানাধীন একটি প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান। পিপল এন টেক নামের এই প্রতিষ্ঠানটি ২০১৮ সালের জন্য ২৫০ জন শিক্ষার্থীকে প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ বাবদ এই বৃত্তি দেবে।

আগ্রহী ব্যক্তিদের ২০ এপ্রিলের মধ্যে পিপল এন টেকের (www.poeoplentech.com) এই ওয়েবসাইটে বিস্তারিত তথ্যের জন্য যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। ১ এপিল প্রতিষ্ঠানটির নিউইয়র্ক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে দাবি করা হয়, গত ১৪ বছরে প্রতিষ্ঠানটি যুক্তরাষ্ট্রের প্রযুক্তি শ্রমবাজারে প্রায় পাঁচ হাজার শিক্ষার্থীর চাকরির ব্যবস্থা করেছে। এর মধ্যে অন্তত চার হাজার শিক্ষার্থী বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত। প্রযুক্তি খাতে ভালো বেতনে চাকরি পাওয়ার নিশ্চয়তা দিয়েই এই বৃক্তি ঘোষণার সময় জানানো হয়, আগামী এক বছরের মধ্যে উপযুক্ত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা এই সুবিধার আওতায় বিনা খরচে বা স্বল্প খরচে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার মূলধারার প্রযুক্তি শ্রমবাজারে উচ্চ বেতনে কাজের সুযোগ নিতে পারবেন।

পিপল এন টেকের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী আবু বকর হানিপ রোববার নিউইয়র্কে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ ঘোষণা দেন। এ সময় প্রতিষ্ঠানটির সিনিয়র কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

এই শিক্ষাবৃত্তির আওতায় পিপল এন টেক প্রতিষ্ঠান থেকে ২৫০ জনের বেশি শিক্ষার্থীকে বিনা মূল্যে অথবা স্বল্পমূল্যে প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। এ প্রকল্পের মাধ্যমে সফটওয়্যার টেস্টিংয়ে ৫০ জন, সেলেনিয়ামে ৫০ জন, মোবাইল অটোমেশনে ৫ জন, সাইবার সিকিউরিটিতে ৫০ ও ডেটাবেজ অ্যাডমিনেস্ট্রেশনে ৫০ জন শিক্ষার্থীকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রযুক্তি শ্রমবাজারের জন্য উপযুক্ত করে গড়ে তোলা হবে। পিপল এন টেকের নিয়মিত কোর্স ফি চার হাজার ডলার, তবে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে এই ফি পুরোপুরি মওকুফ করা হবে বলে জানিয়েছেন আবুবকর হানিপ।

আবু বকর হানিপ জানান, বিগত কয়েক বছরে পিপল এন টেক প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দিয়ে পাঁচ হাজারের বেশি তরুণ-তরুণীকে যুক্তরাষ্ট্রের মূলধারার প্রযুক্তি খাতে উচ্চ বেতনের কাজ জুটিয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে, যাঁদের বেশির ভাগই বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত। ইতিমধ্যেই প্রতিষ্ঠানটি ঢাকায় একটি ক্যাম্পাস চালু করেছে এবং সেখান থেকেও বিপুলসংখ্যক শিক্ষার্থী যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন কোম্পানিতে আকর্ষণীয় বেতনে কাজের সুযোগ পেয়েছেন।

তিনি জানান, পিপল এন টেক নিয়মিতভাবেই মেধাবী শিক্ষার্থীদেরকে স্কলারশিপ বা বৃত্তি দিয়ে থাকে। সেই ধারাবাহিকতায় এবার আরও বেশিসংখ্যক বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে আমেরিকান ও কানাডীয় প্রযুক্তি খাতের সুবিশাল কর্মবাজারে কাজের সুযোগ করে দেওয়ার লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানের এ-যাবৎকালের সবচেয়ে বড় অঙ্কের বৃত্তি ঘোষণা করল। যথা নিয়মে মেধা যাচাই পরীক্ষার ভিত্তিতে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে এই সুবিধা দেওয়া হবে। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র কিংবা কানাডায় বসবাসকারী বাংলাদেশিরা তো বটেই, এমনকি বাংলাদেশে অবস্থানরত উপযুক্ত প্রার্থীরাও নির্ধারিত নিয়মে এই সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন।

আগে থেকেই পিপল এন টেকের বৃত্তিসুবিধা প্রচালিত ছিল কিন্তু এটা এককভাবে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য সবচেয়ে বড় স্কলারশিপের আয়োজন।

‘আমাদের মূল উদ্দেশ্যই হলো বাংলাদেশি তরুণদের প্রযুক্তিশিক্ষা এবং দক্ষতায় উপযুক্ত করে গড়ে তোলা—যেন একদিন তাঁরা উত্তর আমেরিকার প্রযুক্তিবাজারের দখল নিতে পারেন।’ সংবাদ সম্মেলনে বলেন প্রকৌশলী আবুবকর হানিপ।

এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে আগ্রহী ব্যক্তিদের যোগাযোগের ঠিকানা: Address: 1604 Spring Hill Rd, Suite # 302 , Vienna, VA 22182
Phone: +1 703-291-1001 (Consulting & Recruiting)
info@peoplentech.com

    Print       Email

You might also like...

SC Soudi ধূসর মরুর বুকে

ধূসর মরুর বুকে : সাঈদ চৌধুরী

Read More →