Loading...
You are here:  Home  >  এক্সক্লুসিভ  >  Current Article

বহুল প্রত্যাশীত সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন আরো একধাপ এগিয়েছে

সাঈদ চৌধুরী
‘সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়

সিলেটে বহুল প্রত্যাশীত মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন আরো একধাপ এগিয়েছে। ‘সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় আইন-২০১৮’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। ২ এপ্রিল সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে দেশের চতুর্থ এ মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়। এরফলে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও রাজশাহীর পর সিলেটে দেশের চতুর্থ মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপিত হচ্ছে।

Dr A K Abdul Momen

এই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার জন্য নিরবে সরবে যারা লড়ে যাচ্ছেন তাদের অন্যতম জাতিসংঘে বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ড. এ কে আব্দুল মোমেন প্রধানমন্ত্রি শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেছেন, সিলেটে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ফলে দেশের শিক্ষা ও চিকিৎসা ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে। তিনি প্রজেক্ট ডাইরেক্টর ও ভাইস চ্যান্সেলর নিয়োগের মাধ্যমে দ্রুততম সময়ে সামগ্রিক কার্যক্রম পরিচালনার দাবি জানান।

সময়২৪ এর সাথে একান্ত আলাপচারিতায় ড. মোমেন আরও বলেন, গত ৯ জুন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত টিলাগড়স্থ বেতারের জায়গা, মেজরটিলা বিআইডিসি, দক্ষিণ সুরমার পারাইরচক ও চন্ডিপুল এবং টুকেরবাজার বাইপাস এলাকায় কয়েকটি সম্ভাব্য স্থান পরিদর্শন করেন। তবে দক্ষিণ সুরমায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে যেকোন স্থানেই হতে পারে ‘সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়’। এক্ষত্রে তিনি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, জনপ্রশাসন সচিব সহ সংশ্লিষ্ট সকলের আন্তরিক সহায়তার প্রশংসা করে আগস্ট মাসের মধ্যে জায়গা একোয়ার করে নিতে হবে বলে তাদের প্রতি অনুরোধ জানান।

Mahmud us Samad Chowdhury

সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের মহাসচিব মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী সময়২৪ এর সাথে আলাপকালে বলেন, ‘সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হবে এ অঞ্চলে আধুনিক চিকিৎসা ও গবেষণার প্রাণকেন্দ্র। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুত সমৃদ্ধ জাতিগঠনের অংশ হিসেবে দক্ষিণ সুরমা ও ফেঞ্চুগঞ্জ হবে উন্নয়নের রোল মডেল।

‘সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়2

সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদের সভা শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) এএনএম জিয়াউল আলম জানিয়েছেন, সুরমা নদীর দক্ষিণ পাড়ে সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থাপনা নির্মাণ করা হবে।তিনি আরো বলেন, সিলেট বিভাগের আওতাধীন সব সরকারি-বেসরকারি মেডিকেল কলেজ, ডেন্টাল কলেজ, নার্সিং কলেজ বা ইনস্টিটিউশন অথবা অন্য কোনো মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠান এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হবে। এসব প্রতিষ্ঠানের অ্যাফিলিয়েটেড অথরিটি হিসেবে কাজ করবে এই বিশ্ববিদ্যালয় । তিনি জানান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়েও এমনটি রয়েছে। এরপর রাজশাহী ও চট্টগ্রামে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা হয়েছে। উপাচার্য নিয়োগের মাধ্যমে এসব বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

‘সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়৩

বুধবার সচিবালয়ে অর্ধ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের উপস্থিতিতে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম জানান, ‘দেশের চতুর্থ মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সিলেটে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার অনুমোদন দিয়েছেন। আমরা এখন আইন প্রণয়নের কাজ করছি। আইন প্রণয়ন শেষ হলেই ভিসি নিয়োগ দেয়া হবে।’ তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী ও চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় যে নীতিমালায় হয়েছে একই নীতিমালায় সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রী আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা অনুযায়ী সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় আইন প্রণয়ন কার্যক্রম দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। শিগগিরই জাতীয় সংসদে এ আইনটি উপস্থাপন হবে। আইনটি জাতীয় সংসদে পাশ হলে এই বিশ্ববিদ্যালয় আইন অনুযায়ী সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পরবর্তী কার্যক্রম শুরু হবে।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, আমরা যারা সিলেটের অধিবাসী তারা খুবই তৃপ্তি পাচ্ছি। এখন আমাদের প্রধান কাজ হচ্ছে মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের জন্য জায়গা নির্ধারণ করা।

বৈঠকে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, সিলেটের সাবেক মেয়র বদর উদ্দীন আহমদ কামরান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. ইসমাইল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

BMA20161126131730-300x161

‘সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় আইন-২০১৮’ মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন। মঙ্গলবার সংগঠনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন ও মহাসচিব ডা. মো. ইহতেশামুল হক চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এই শুভেচ্ছা জানানো হয়। বিবৃতিতে তারা বলেন, চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও সিলেটে পৃথক তিনটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বিএমএ’র দাবির অনেকটাই বাস্তবায়ন হল। বিএমএ মনে করে পৃথক চারটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে দেশের মেডিকেল শিক্ষার মানোন্নয়ন ও চিকিৎসা বিজ্ঞানের গবেষণার দ্বার উন্মোচিতাচিত হল।

উল্লেখ্য, ১৯৪৮ সালে সিলেট নগরীর চৌহাট্টায় সিলেট মেডিকেল স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হয়। এরপর স্কুলটিকে কলেজে রূপান্তরের দাবীতে আন্দোলন হলে ১৯৬৮-৬৯ সালে কলেজ ক্যাম্পাস সম্প্রসারণ করা হয়। ১৯৭১-৭২ সাল থেকে ক্যাম্পাসটি কাজলশাহ এলাকায় স্থানান্তরিত হয়। ১৯৬২ সালে পাকিস্তান সরকারের আমলে সিলেট মেডিকেল কলেজ নামে এটি কলেজ পর্যায়ে উন্নীত করা হয়। স্বাধীনতা লাভের পর, ১৯৮৬ সালে তৎকালীন সরকার কর্তৃক মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক জেনারেল মুহাম্মদ আতাউল গণি ওসমানীর নামানুসারে কলেজটির নাম পরিবর্তন করে “সিলেট এম.এ.জি. ওসমানী মেডিকেল কলেজ” নামকরণ করা হয় যা সংক্ষেপে সিওমেক নামে পরিচিত।

বিভাগীয় শহর সিলেটে অবস্থিত সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত এই প্রতিষ্ঠানটি শরু থেকে ১ বছর মেয়াদী হাতে-কলমে শিখনসহ (ইন্টার্নশিপ) স্নাতক পর্যায়ের ৫ বছর মেয়াদি এম.বি.বি.এস. শিক্ষাক্রম চালু রয়েছে; যাতে প্রতিবছর ১৯৭ জন শিক্ষার্থীকে ভর্তি করা হয়ে থাকে। ২০১০ সাল থেকে ৪ বছর মেয়াদী ডেন্টাল ডিগ্রি চালু রয়েছে, যেখানে প্রতিবছর প্রায় ৫২ জনের মত শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়। মূল কার্যক্রমের পাশাপাশি নার্সদের প্রশিক্ষণের কার্যক্রমও পরিচালিত হয়।

২০৬,৩৫৫ বর্গ মিটার এলাকা জুড়ে অবস্থিত কলেজ এবং হাসপাতাল পুরাতন ও নতুন অঞ্চলে বিভক্ত। নতুন অঞ্চলে অবস্থিত কলেজটি ১৯১,৯৭৭ বর্গ মিটার এলাকা জুড়ে বিস্তৃত। মূল ক্যাম্পাসে ছাত্র-ছাত্রী নিবাসের সাথে বিশাল খেলার মাঠও রয়েছে।

এছাড়া সিলেট বিভাগে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় বেশ কয়েকটি মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এরমধ্যে জালালাবাদ রাগীব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজ, সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ, নর্থ ইস্ট মেডিকেল কলেজ, পার্কভিউ মেডিকেল কলেজ, দুররে সামাদ রহমান উইমেন্স রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ উল্লেখযোগ্য।

    Print       Email

You might also like...

D7E7F185-3A7E-4610-BA33-7F90ED7F5873

সৌদি রাজ প্রাসাদে হামলার চেষ্টা, বেশ কয়েকজন নিহত

Read More →