Loading...
You are here:  Home  >  ইউকে  >  Current Article

লন্ডনে গাজী কালু চম্পাবতী পালা ১৭ নভেম্বর

8c153d8a82f1fb49a0030c95ac9fc82c-5a06ea555791f
বাংলা পালাগানের উৎস ও বিকাশ বিষয়ক বিশেষ ভূমিকা ও বাংলার জনপ্রিয় গাজী কালু চম্পাবতী পালার বিনির্মাণবাদী সংক্ষিপ্ত মঞ্চায়ন হবে আগামী ১৭ নভেম্বর শনিবার। টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল প্রযোজিত এ সিসন অব বাংলা ড্রামা এবং সৌধ আয়োজিত তিন মাসব্যাপী বাংলা সংগীত উৎসবের অংশ হিসেবে এই পালার মঞ্চায়ন হবে লন্ডনের ব্রিকলেনের কবি নজরুল সেন্টারে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়। টি এম আহমেদ কায়সারের ভূমিকা গ্রন্থনা ও পরিচালনায় অনুষ্ঠিতব্য এই বিশেষ পরিবেশনায় অংশ নেবেন কবি ডেভিড লি মরগ্যান, লোকনৃত্যশিল্পী সোহেল আহমেদ, হারমোনিয়ামে অমল পোদ্দার ও ঢোল সংগতে নারায়ণ দে প্রমুখ।

ইতিপূর্বে কায়সারের পরিচালিত পালাগান বিনন্দের কিচ্ছা ও মদনকুমার মধুমালার পালা বাঙালি অবাঙালি দর্শক মহলে বিপুলভাবে প্রশংসিত হয়। গাজী কালু চম্পাবতীর পালা সামনের বছর আরও বৃহৎ কলেবরে একটি পূর্ণাঙ্গ থিয়েট্রো-মিউজিক্যাল প্রোডাকশন হিসেবে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহরে মঞ্চায়িত হবে বলে জানা গেছে।
প্রোডাকশনের পরিচালক টি এম আহমেদ কায়সার বলেন, বিশ্বমঞ্চে তুলে ধরার জন্য আমরা আমাদের লোকসাহিত্যের বিশাল খনিগুলোকেই সন্ধান করে বেড়াচ্ছি। এই সব পালাকারদের সীমাবদ্ধতা নিয়েও আমরা মনোনিবেশ করছি। প্রেমের কারণে চম্পাবতীর ধর্মত্যাগের মতো ঘটনাগুলোকে আমরা বর্ণিত সময় ও এর আর্থসামাজিক প্রেক্ষিতের আলোকে আরও নিবিড়ভাবে পাঠ করছি। তিনি বলেন, আমরা আসলে গাজী কালুর একটি রাজনৈতিক ভাষ্যও নির্মাণ করতে চাই। ১৭ নভেম্বর নজরুল সেন্টারে এই চেষ্টার একটা সংক্ষিপ্ত প্রতিফলন তো থাকবেই।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশের ঝিনাইদহ জেলার বার বাজার এলাকার লোক কাহিনি ‘গাজী কালু চম্পাবতী’। যুগ যুগ ধরে লোক মুখে গাজী, কালু, চম্পাবতীর কাহিনি এলাকায় প্রচলিত। গাজী কালু চম্পাবতীর মাজারটি এখনো ঝিনাইদহ জেলার বার বাজারের পাশে বাদরগাছি গ্রামে অবস্থিত। এলাকার মানুষ বংশ পরম্পরায় লোকমুখে এই কাহিনিটি বহন করে চলেছে।
মূলত অলৌকিক কিছু ঘটনা নিয়ে নাটকের কাহিনি জমে উঠেছে। অলৌকিক কাহিনি হলেও ধর্মীয় সম্প্রীতির মেল বন্ধন এই নাটকের উপজীব্য। বর্তমান বিশ্ব প্রেক্ষাপটে এই লোক কাহিনির গুরুত্ব অপরিসীম।

    Print       Email

You might also like...

biyani-bazar-6

লন্ডনে বিয়ানীবাজারের পিএইচজি স্কুলের উৎসবমুখর শতবর্ষ পূর্তি

Read More →