Loading...
You are here:  Home  >  ইউকে  >  Current Article

সুইডেনকে বিদায় করে সেমিতে ইংল্যান্ড

sweden-samakal-5b40db1a812a9

ইতিমধ্যে শেষ চারে থাকাটা নিশ্চিত করেছে ইংল্যান্ড ফ্রান্স ও বেলজিয়াম। সুইডেনকে ২-০ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠে গেছে সাউথগেটের শিষ্যরা।ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে রাশিয়া-ক্রোয়েশিয়া ম্যাচের বিজয়ী দলের সঙ্গে খেলবে হ্যারি কেনের দল।

শুরু থেকেই ম্যাচের রেশটা টেনে ধরে ইংল্যান্ড। ৩০ মিনিটে সফলতাও পেয়ে যায় থ্রি লায়ন্সরা। ডি বক্সের বারে অ্যাশলে ইয়ংয়ের পাস থেকে বল পান ম্যাগুয়েরে। দারুণ এক হেডে গোল করেন ২৫ বছর বয়সী এই ডিফেন্ডার। আন্তর্জাতিক ফুটবলে এটিই তার প্রথম গোল। এরপর ম্যাচের ৫৮ মিনিটে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুন করেন ডেল আলি। এর পর আর কোনো পক্ষই গোল করতে পারেনি।

ম্যাচের ১৪ মিনিটে একটি সুযোগ হাতছাড়া করেন হ্যারি কেন। বক্সের সামনে থেকে তাঁর চমৎকার প্লেসিং সাইডবার ঘেঁষে বাইরে চলে যায় বল। প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে আরেকটি গোল হজম করতে বেসেছিল সুইডেন। গোলক্ষকের দৃঢ়তায় সে যাত্ররায় ক্ষা পায় তারা। রাহিম স্টার্লিং বল নিয়ে দ্রুতই ডি বক্সে ঢুকে পড়েন। সুইডেন গোলরক্ষক দৌড়ে গিয়ে ঝাপিয়ে পড়ে রক্ষা না করলে বিপদ হতে পারতো।

সে হিসেবে সুইডেন খুব একটা বিপদে ফেলতে পারেনি ইংল্যান্ডকে। বেশিরভাগ সময়ই তারা হ্যারি কেন-ডেলে আলিদের আক্রমণ সামলাতে ব্যস্ত ছিলেন।

শনিবার সামারা এরেনায় কোয়ার্টার ফাইনালের গুরুত্বপূর্ণ লড়াইয়ে অপরিবর্তিত একাদশ নিয়েই হ্যারি কেনের নেতৃত্বে মাঠে নামে ইংল্যান্ড। এনিয়ে ২৫তম বারের মতো মুখোমুখি হলো ইংল্যান্ড ও সুইডেন। আগের ২৪ সাক্ষাতে ইংল্যান্ড জিতেছে আটবার আর সুইডেন জিতেছে সাতটিতে। আজ পরিসংখ্যানটাকে আরেকটু সমৃদ্ধ করল ইংলিশরা।

বিশ্বকাপের এর আগের দুটি লড়াইয়ে সুইডিশদের হারাতে পারেনি তারা। আজ সেই আক্ষেপও ঘোচালেন কেন-আলিরা। দুই দলের শেষ লড়াইয়ে জয় পেয়েছিল সুইডেন। ৪-২ গোলের সে জয়ে সুইডেনের হয়ে চারটি গোলই করেছিলেন ইব্রাহিমভিচ।

১৯৯৪ সালের পর এবারই প্রথম সেমিফাইনালে ওঠার হাতছানি ছিল সুইডেনের সামনে। এর আগে চারবার শেষ আটে উঠেছিল সুইডেন। তাতে তিনবারই সেমিতে খেলে দলটি। এবার অবশ্য আর পেরে উঠল না দলটি। অন্যদিকে ইংল্যান্ডের এটি দশম কোয়ার্টার ফাইনাল। এনিয়ে তিনবার শেষ চারে পা রাখল ইংলিশরা।

তিউনিসিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকাপ সফর শুরু করে ইংল্যান্ড। পরের ম্যাচে পানামাকে নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলা করেছে কেন-লিনগার্ডরা। কিন্তু তৃতীয় ম্যাচে এসে হোঁচট খায় সাউথগ্যাট শিষ্যরা। হেরে বসে বেলজিয়ামের সঙ্গে। দ্বিতীয় রাউন্ডে কলম্বিয়াকে টাইব্রেকারে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠে দলটি।

অন্যদিকে প্রথম ম্যাচে কোরিয়াকে হারানোর পরই জার্মানদের কাছে হারে সুইডিশরা। সেই জ্বালা মেটাতেই মেক্সিকোকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দেয় অ্যান্ডারসন শিষ্যরা। আর নক আউটে সুইসদের ১-০ গোলে হারায় সুইডেন।

ইংল্যান্ড একাদশ : জর্ডান পিকফোর্ড, কাইল ওয়াকার, জন স্টোনস, হ্যারি ম্যাগুইরে, কেইরান ট্রিপার, অ্যাশলে ইয়াং, হেসে লিনগার্ড, জর্দান হেন্ডারসন, ডেলে আলি, হ্যারি কেন, রাহিম স্টার্লিং।

সুইডেন একাদশ : রবিন ওলসেন, ভিক্টর নিলসন লিন্ডেলফ, আন্দ্রেস গ্রাঙ্কভিস্ট, লুইডউইগ অগাস্টিনসন, এমিল ক্রাফট, সেবাস্তিয়ান লারসন, আলবিন একদাল, এমিল ফরসবার্গ, ভিক্টর ক্লায়েসন, মার্কাস বার্গ, ওলা তোইভোনেন।

    Print       Email

You might also like...

1531921088_6

এরদোগানের প্রশংসায় ট্রাম্প

Read More →