Loading...
You are here:  Home  >  এক্সক্লুসিভ  >  Current Article

স্বায়ত্তশাসন পাচ্ছেন ফিলিপাইনের মুসলিমরা

321382_145

কয়েক দশক ধরে চলা সংঘাতের পর মিন্দানাওকে স্বায়ত্তশাসন দেয়া হয়েছে। বুধবার খনিজসমৃদ্ধ এ অঞ্চলের স্বায়ত্তশাসনের পক্ষে বিপুল ভোট পড়ে।

বুধবার দেশটির নিম্নকক্ষে ব্যাঙ্সামোরো বেসিক ল (বিবিএল) নামের এই আইনের পক্ষে ভোট পড়ে ২২৭টি। বিপক্ষে পড়ে মাত্র ১১টি। এ আইনকে দেশটির দরিদ্রতম অঞ্চলটির একটি দীর্ঘতম শান্তিপ্রক্রিয়া হিসেবে দেখা হচ্ছে। এ আইনের ফলে ৪০ লাখ লোকের এই দ্বীপটিতে স্বায়ত্তশাসন প্রতিষ্ঠিত হবে।

আইনটিকে ২০১৪ সালে মরো ইসলামিক লিবারেশন ফ্রন্ট (এমআইএলএফ) এবং সরকারের মধ্যে স্বাক্ষরিত শান্তিচুক্তির ফল হিসেবে দেখা হচ্ছে। এর ফলে ৫০ বছর ধরে চলা লড়াই শেষ হবে, যাতে এক লাখ ২০ হাজার লোক নিহত হয়েছে এবং ২০ লাখ লোক বাস্তুচ্যুত হয়েছে।

ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে এ দ্বীপের মেয়র ছিলেন দীর্ঘ ২২ বছর যাবত। তিনিই এ বিলটি পাসের ব্যাপারে জোর দেন এবং একে জরুরি বিল হিসেবে পাস করান। আশা করা হচ্ছে উভয় কক্ষেই সহজেই বিলটি পাস হবে।

এর আগের সরকারগুলো এ বিলটি পাসে ব্যর্থ হয়েছিল, যা ওই অঞ্চলের মুসলমানদের মধ্যে অসন্তোষ ও অবিশ্বাসের মাত্রা বাড়িয়ে দিয়েছিল। দুতার্তে এ আইন পাসের আগে সর্তক করে দিয়ে বলেছিলেন, এ ক্ষেত্রে আবারো ব্যর্থ হলে তা খুবই বিপজ্জনক হবে এবং দায়েশের মতো সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর হাতে চলে যেতে পারে, যারা গত বছরে পাঁচ মাস ধরে মারাভি শহর দখল করে রেখেছিল। তাদের উৎখাতের লড়াইয়ে শত শত লোক মারা যায় এবং সাড়ে তিন লাখ লোক বাস্তুচ্যুত হয়। এ সময় উভয় পক্ষের লড়াইয়ে শহরের প্রায় অর্ধেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল।

দক্ষিণ কোরিয়ার আয়তনের সমান আয়তন বিশিষ্ট মিন্দানাও ফিলিপাইনের সবচেয়ে অনুন্নত এলাকা। কিন্তু সেখানে নিকেলের খনি পাওয়া গেছে এবং বড় বড় ফলের বাগান রয়েছে। এছাড়া সরকার সেখানে পাম অয়েলের ফার্ম করতে চাইছে।

    Print       Email

You might also like...

2D5D723F-3327-443B-A229-AAB0D9177CEC

এরদোগানের বিশাল বিজয় : নতুন যুগে তুরস্ক

Read More →