Loading...
You are here:  Home  >  ধর্ম-দর্শন  >  Current Article

হেফাজতে ইসলাম ইউকে’র ইফতার মাহফিল

IMG-20180613-WA0007

হেফাজতে ইসলাম ইউকে’র ইফতার মাহফিলে বিশ্বের মজলুম মানুষ এবং নির্যাতীত মুসলমানদের মুক্তির জন্যে বিশেষ দোয়া এবং সংযম সবর ও আত্মশুদ্ধির মাধ্যমে মানবতার মুক্তির জন্যে কাজ করতে এগিয়ে আসার জন্য সবার প্রতি আহবান জানানো হয়।
রোববার ১০ জুন হেফাজতে ইসলাম ইউকে এন্ড আয়ার’র সভাপতি মাওলানা আবদুল কাদির সালেহ’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে হেফাজতে ইসলামের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফি’র সুস্থতা ও দীর্ঘ জীবন কামনা করে দোয়া করা হয়।
ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন হেফাজতে ইসলাম ইউরোপ’র সভাপতি মুফতি শাহ সদরুদ্দীন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইন্টারন্যাশনাল পিস ফেডারেশনের চেয়ারম্যান ড. শায়েখ রামজী। অতিথি হিসেবে উপস্থত ছিলেন রাজনীতিবিদ ড. এম এ আজিজ, আলকুরআন রিসার্চ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান হাফিজ মাওলানা শফিকুর রহমান, যুক্তরাজ্য খেলাফত মজলিসের সভাপতি মাওলানা সাদিকুর রহমান, গবেষক ও সমাজ বিশ্লেষক ডা. ফিরোজ মাহবুব কামাল, পরিবেশ বিশেষজ্ঞ ড. কামরুল হাসান, ফররুখ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মাওলানা রফিক আহমদ, কবি ও কলামিষ্ট আবু সুফিয়ান চৌধুরী, সর্বদলীয় উলামা সংগঠন বাংলাদেশী মুসলিমস ইউকের মজলিসে কিয়াদতের সদস্য মাওলানা এফ কে শাহজাহান, যুক্তরাজ্য খেলাফত মজলিসের নির্বাহী সদস্য আজাবুল হক, মহানগরী সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আনিসুর রহমান, রেনেসাঁ সাহিত্য মজলিস ইউকের সাধারণ সম্পাদক শিহাবুজ্জামান কামাল, লাইম হাউস মসজিদের ইমাম হাফিজ মাওলানা শিব্বির আহমদ।
প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, শাপলা চত্তরকে আমরা ভুলে যেতে পারি না। ঐদিন ছিল সত্যের বিজয় ও মিথ্যার পরাজয়ের দিন। কারবালা বালাকোট যেভাবে ইসলামের আপোষহীন পতাকাকে উচিয়ে দিয়ে গেছে। তেমনি শাপলা চত্তরও বাংলাদেশ থেকে ইসলামকে নির্মূলের সর্বাত্মক চেষ্টাকে ধূলিস্যাত করে ইসলামের মর্যদাকে সর্বোচ্চ স্থাপন করেছে।
সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা আবদুল কাদির সালেহ বলেন, শাপলা চত্তর একটি চেতনা ও ইতিহাসের এক স্বর্নোজ্জল অধ্যায়ের নাম। রাসূলের সম্মান ও মর্যাদা এবং ইসলামের অস্তিত্ব বিনাসী অপচেষ্টার বিরুদ্ধে প্রতিরোধের নাম। তিনি বলেন গুম, খুন, ক্রস ফায়ার বাংলাদেশের মানুষের নাগরিক নিরাপত্তাকে কেড়ে নিয়েছে। বলপ্রয়োগের মাধ্যমে মানুষের বশ্যতা আদায় করার পরিণাম শুভ হয়না।
অন্যান্য বক্তাগণ বলেন, ইতিহাসকে যারা ভুলে যায়, তারা বেশী দিন টিকে থাকতে পারে না। শাপলা চত্তরের রক্ত বাংলার জমিনে ইসলাম কায়েম হবে। তারা রামাদানের সংযম ও আত্মশুদ্ধির চেতনায় শানিত হয়ে অন্যায়ে জুলুম ও গুম, খুনের বিরুদ্ধ রুখে দাঁড়াবার জন্যে আহবান জানান।

    Print       Email

You might also like...

image-142987-1529209259

ধর্ম নিয়ে নিজের অবস্থান জানালেন মমতা

Read More →