Loading...
You are here:  Home  >  সিলেট সংবাদ  >  Current Article

২৫ জুলাই আজমিরীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচন

36232

এসএম সুরুজ আলী ॥ উপজেলা চেয়ারম্যান আতর আলী মিয়ার মৃত্যুতে শূন্য হওয়া আজমিরীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৫ জুলাই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ২৪ জুন রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল, ২৬ জুন মনোনয়নপত্র বাছাই ও ৩ জুলাই মনোনয়নপত্র প্রত্যহারের শেষ তারিখ। প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র অনলাইনে জমা দিতে পারবেন বলে নির্বাচন কমিশন সূত্র জানিয়েছে।
রবিবার নির্বাচন কমিশনের আদেশক্রমে যুগ্ম সচিব নির্বাচন ব্যবস্থাপনা-২ খোন্দকার মিজানুর রহমানের এক পত্রে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়। এদিকে গতকাল জেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ নাজিম উদ্দিন জানান, আজমিরীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনের বিষয়টি চিঠির মাধ্যমে আমাদের জানানো হয়েছে। আমরা নির্বাচনের ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সকল প্রস্তুতি নিচ্ছি। আশা করি সকলের সহযোগিতায় সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
উল্লেখ্য, গত ৩০ এপ্রিল আজমিরীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আতর আলী মিয়া ইন্তেকাল করেন। নিয়ম অনুযায়ী কোন জনপ্রতিনিধি মৃত্যুবরণ করলে সেখানে উপ-নির্বাচনের কথা রয়েছে। এ হিসেবে গত ১৯ মে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় আজমিরীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদটি শূন্য ঘোষণা করে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনে চিঠি প্রেরণ করেন। এ প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন ২৫ জুলাই এ উপজেলায় উপ-নির্বাচনের তারিখ ধার্য্য করে। পাঁচটি ইউনিয়ন পরিষদ ও ১টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত আজমিরীগঞ্জ উপজেলা। এ উপজেলায় মোট ৭৯ হাজার ৭৫৩ ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ ৪০ হাজার ৫৩ ও মহিলা ভোটার ৩৯ হাজার ৭শ’। তবে হালনাগাদ ভোটার তালিকায় আরো ৩/৪হাজার ভোট বেড়েছে বলে জানা গেছে।
ভাটি এলাকা হিসেবে পরিচিত এ উপজেলার বিগত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে অংশ নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আতর আলী মিয়া চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। এ নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মিজবাহ উদ্দিন ভূইয়া। নির্বাচিত হওয়ার পর আতর আলী মিয়া সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ খানের সাথে সমন্বয় রেখে উপজেলায় বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড করেন। তিনি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সক্রিয় ছিলেন। উপজেলা চেয়ারম্যানের পাশাপাশি তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকও ছিলেন। এদিকে আজমিরীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির ১২ জন সম্ভাব্য প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মিজবাহ উদ্দিন ভূইয়া, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মর্তুজা হাসান, উপজেলা চেয়ারম্যান মরহুম আতর আলী মিয়ার ছেলে যুবলীগ নেতা আল-আমিন, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মরহুম হাফিজ উদ্দিন হাফাই’র সহধর্মীনি নিলুফা ইয়াসমিন, সিলেট মহানগর বিএনপি’র সহ-স্বেচ্ছাসেবক সম্পাদক ও আজমিরীগঞ্জ উপজেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক খালেদুর রশীদ ঝলক, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফেডারেশনের নেতা অ্যাডভোকেট সাইদুল আমিন চৌধুরী শিরুল ও উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক কাপ্তার সারোয়ার।
তফসিল ঘোষণার আগ থেকেই সম্ভাব্য প্রার্থীরা এলাকায় মানুষের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন। গতকাল নির্বাচনী তফসীল ঘোষণার পর সম্ভাব্য প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণা শুরু করে দিয়েছেন। সম্ভাব্য প্রার্থীরা জানিয়েছেন যেহেতু এটি দলীয় নির্বাচন হবে। সেহেতু দল যাকে মনোনয়ন দিবে তারা তা মেনে নিবেন।
উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মিজবাহ উদ্দিন ভূইয়া বলেন- তফসিল ঘোষণার খবর পেয়েছি। একজন রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে এলাকার মানুষের সাথে আমার সব সময় যোগাযোগ রয়েছে। শুধু নির্বাচনই বড় কথা নয়, আমি দলীয় সিদ্ধান্তের উপর নির্ভরশীল। দল যদি আমাকে প্রার্থী মনোনীত করে তাহলে আমি নির্বাচনে অংশ নেবো। আর আমাকে মনোনীত না করে যদি অন্য কাউকে মনোনীত করে তাহলে দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে নিয়ে আমি তার পক্ষে কাজ করবো।
জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মর্তুজা হাসান জানান, তফসিল ঘোষণার পূর্ব থেকে এলাকার মানুষের সাথে আমার যোগাযোগ রয়েছে। অনেকেই আমাকে প্রার্থী হওয়ার জন্য অনুরোধ করছেন। দীর্ঘদিন ধরে এলাকার মানুষের সেবায় কাজ করে যাচ্ছি। দলের মনোনয়ন পাওয়ার প্রকৃত দাবিদার আমিই। আশা করি দল আমাকে মূল্যায়ন করবে। দলীয় মনোনয়ন পেলে আমি বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবো।
সদ্যপ্রয়াত উপজেলা চেয়ারম্যান আতর আলী মিয়ার ছেলে যুবলীগ নেতা আল-আমিন বলেন, আমার বাবার অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করতে চাই। এজন্য আমি দলীয় মনোনয়নের নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চাই। যেহেতু আমার বাবা আওয়ামী লীগের একজন সৈনিক, দীর্ঘদিন আজমিরীগঞ্জবাসীর কল্যাণে কাজ করে গেছেন। সেই বাবার সন্তান হিসেবে আমিও আজমিরীগঞ্জবাসীর সুখে-দুঃখে পাশে থাকতে চাই। আশা করি দল আমাকে মূল্যায়ন করবে।
উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক কাপ্তান সারোয়ার জানান, আমি এলাকার মানুষের সাথে যোগাযোগ করে সহযোগিতা চেয়েছি। এখন নির্বাচনের পরিস্থিতি কেমন হবে। সেদিক বিবেচনা করেই আমি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবো। যেহেতু আমি দলের একক প্রার্থী। সেই হিসেবে দলীয় মনোনয়ন আমিই পাবো।
বিএনপি নেতা খালেদুর রশিদ ঝলক জানান, উপ-নির্বাচনে সকল প্রস্তুতি আমার রয়েছে। বিএনপি’র একক প্রার্থী হিসেবে আমিই নির্বাচনী মাঠে রয়েছি। অতীতে আজমিরীগঞ্জে দলের বাইর থেকে লোক এনে প্রার্থী দেয়া হয়েছে। এবার আমি দলীয় মনোনয়ন পাবো বলে আশাবাদী। দলীয় মনোনয়ন পেলে যদি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন হয় তাহলে ইনশাআল্লাহ আমি নির্বাচিত হবো।

    Print       Email

You might also like...

K-Ludi

মেয়র পদে বিএনপির মনোনয়নপত্র কিনলেন কাউন্সিলর কয়েস লোদী

Read More →