Loading...
You are here:  Home  >  সিলেট সংবাদ  >  Current Article

৪৯৩ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করলেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী

118362

সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) ২০১৭-১৮ অর্থবছরের ৪৯৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৭ আগস্ট) দুপুরে নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বাজেট ঘোষণা করেন সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। ঘোষিত বাজেটে এবার আয়ের সমপরিমাণ ব্যয়ও ধরা হয়েছে।

ঘোষিত বাজেটে এবার ‘পরিকল্পিত নগরায়ন ও নাগরিকদের অধিকতর সুবিধা ও অনলাইনে সেবা প্রদান নিশ্চিতকরণের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। বাজেটে রাজস্ব খাত বাবদ আয় ৪৭ কোটি ৭৯ লাখ ৬৮ হাজার এবং একই খাতে ৪৮ কোটি ৮৯ লাখ ৭৮ হাজার টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে।

এছাড়া আয়ের অন্যতম খাতগুলো হচ্ছে স্থাবর সম্পত্তি হস্তান্তরের উপর আরোপিত কর ৮ কোটি টাকা, ইমারত নির্মাণ ও পুনঃনির্মাণের উপর কর ২ কোটি, পেশা ও ব্যবসার উপর ৮ কোটি ৫০ লাখ, বিজ্ঞাপনের কর ১ কোটি ৫ লাখ, বিভিন্ন মার্কেটের দোকান গ্রহীতার নাম পরিবর্তনের ও নবায়ন ফি’র উপর ২০ লাখ, বাস টার্মিনাল ইজারা বাবদ আয় ৬৫ লাখ, খেয়াঘাট ইজারা বাবদ আয় ২০ লাখ, সিটি সম্পত্তি ভাড়া ৮০ লাখ, অন্য সংস্থা কর্তৃক রাস্তা কাটার ক্ষতিপূরণ বাবদ আয় ২৫ লাখ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় ১ কোটি, পানীয় জলের মাসিক চার্জ ২ কোটি ৮০ লাখ, পানির লাইনের সংযোগ ও পুনঃসংযোগ ফি ৮০ লাখ, নলকূপ স্থাপনের অনুমোদন ও নবায়ণ ফি ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা আয় ধরা হয়েছে।

হোল্ডিং ট্যাক্সসহ অন্য বকেয়া পাওনা পরিশোধ করলে বাজেট বছরে সিসিকের নিজস্ব খাতে ৮৩ কোটি ১৭ লাখ ৭৮ হাজার টাকা আয় হবে বলে বাজেটে উল্লেখ করেন মেয়র আরিফুল।

বাজেটে রাজস্ব খাতে সর্বমোট ৪৮ কোটি ৮৯ লাখ ৭৮ হাজার টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে। এরমধ্যে রাজস্ব ও অবকাঠামো উন্নয়ন ব্যয় বাবদ ৩৪ কোটি ৪০ লাখ টাকা। সরকারি বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) খাতে ২০ কোটি, সরকারি বিশেষ মঞ্জুরি খাতে ১০ কোটি, অন্য প্রকল্প মঞ্জুরি খাতে ১ কোটি, অবকাঠামো নির্মাণ প্রকল্প খাতে ১০০ কোটি, ছড়া সংরক্ষণ ও রিটেইনিং ওয়াল নির্মাণ প্রকল্প খাতে ৮০ কোটি টাকাসহ বিভিন্ন খাতে ব্যয় ধরা হয়েছে।

২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে ১৯৬ কোটি ১৯ লাখ ৯০ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়। এর মধ্যে রাজস্ব খাতে আয় ছিল ৪৬ কোটি ১৬ লাখ ৫৮ হাজার টাকা এবং ব্যয় ছিল ৪৯ কোটি ৬ লাখ ১০ হাজার টাকা।

সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবিবের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বাজেট ঘোষণার শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন সিসিক জামে মসজিদের খতিব মাওলানা শামসুল ইসলাম। গীতা পাঠ করেন শ্রী রতিশ চক্রবর্তী। বাজেট ঘোষণার পর প্রশ্নত্তোর পর্বে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিয়ে মেয়র নগর উন্নয়নে সবার সহযোগিতা কামনা করেন।

তিনি বলেন, কারাগারে থাকার কারণে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প এগিয়ে নিতে পারিনি। সেসব অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করতে চেষ্টা চালিয়ে যাবো। হকারদের পুনর্বাসন, ছড়াখাল উদ্ধার, স্বাস্থ্য-শিক্ষায় সিলেটকে এগিয়ে নেওয়াসহ বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নে সবার সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

    Print       Email

You might also like...

K-Ludi

মেয়র পদে বিএনপির মনোনয়নপত্র কিনলেন কাউন্সিলর কয়েস লোদী

Read More →